শিরোনাম

6/recent/ticker-posts

Header Ads Widget

মাধ্যমিকে বার্ষিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে না, সকল শিক্ষার্থীই পরবর্তী ক্লাসে উত্তীর্ণ হবে - শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, করোনা ভাইরাসের কারণে চলতি বছরের মাধ্যমিক স্তরে বার্ষিক পরীক্ষা নেয়া হবে না। সকল শিক্ষার্থীই পরবর্তী ক্লাসে উত্তীর্ণ হবে। আজ এক অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী কথা জানিয়ে দেন।




শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ৩০ কর্ম দিবসের জন্য একটি পাঠ্যসূচি প্রণয়ন করা হয়েছে সংক্ষিপ্ত এই পাঠ্যসূচির ভিত্তিতে অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে হবে  শিক্ষার্থীদের। প্রতি সপ্তাহে এই অ্যাসাইনমেন্ট জমা দেওয়া নেওয়া হবে। তবে অ্যাসাইনমেন্টের মূল্যায়ন পরবর্তী ক্লাসে উত্তীর্ণ হওয়ার ক্ষেত্রে কোনো ভূমিকা রাখবে না বলে জানান তিনি। এই মূল্যায়নের মাধ্যমে মূলত শিক্ষার্থীদের কি ঘাটতি আছে তা দেখা হবে। যাতে করে পরবর্তী ক্লাসে বিশেষ ব্যবস্থার মাধ্যমে সেটা পূরণ করা যায়। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে এই পাঠ্যসূচি দেওয়া হবে। প্রতিষ্ঠানের প্রধানদের কাছেও তা পৌঁছে দেওয়া হবে বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি আরো বলেন, আগামী নভেম্বর ডিসেম্বর মাসের মধ্যে অনলাইনে এই সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের ক্লাস নেয়া হবে এবং অ্যাসাইনমেন্ট প্রদান মূল্যায়ন সম্পন্ন করা হবে। এই সময়ের মধ্যে কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অন্য কোনো রকমের পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে শিক্ষার্থীদের বাধ্য করতে পারবে না বলে তিনি জানিয়ে দেন।

 

শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেন, পরীক্ষায় কোনো শিক্ষার্থীর অকৃতকার্য হওয়া শিক্ষার্থীর ব্যর্থতা নয়, এটা শিক্ষক অথবা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ব্যর্থতা। শিক্ষার্থীদের কে ব্যর্থতার দায় থেকে মুক্তি দেয়ার লক্ষ্যে আমরা মূল্যায়ন পদ্ধতির গতানুগতিক ধারা পরিবর্তন করতে চাচ্ছি। মূল্যায়ন পদ্ধতির সংস্কার করার লক্ষ্যে ন্যাশনাল ইভালুয়েশন এন্ড অ্যাসেসমেন্ট সেন্টার ( এনইএসি) গঠন করার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

 


এছাড়াও সংবাদ সম্মেলনে যুক্ত ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, মাদ্রাসা কারিগরি শিক্ষা বিভাগের সচিব মোঃ আমিনুল ইসলাম খান এবং মাধ্যমিক উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ডঃ সৈয়দ গোলাম ফারুক।

 

 

 

তথ্য জনসংযোগ কর্মকর্তা

শিক্ষা মন্ত্রনালয় 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ