শিরোনাম

6/recent/ticker-posts

Header Ads Widget

ব্যস্ত ব্যক্তিদের জন্য স্বাস্থ্যকর জীবনযাত্রার ৯ টি টিপস


 


আপনার ব্যস্ত জীবন চালনা করার জন্য আপনার কাছে কখনই খুব বেশি পরামর্শ এবং কৌশল থাকতে পারে না। যা আপনার ভারী কাজের বোঝা বাড়াতে পারে, আপনার খাদ্যাভাসকে প্রভাবিত করতে পারে এবং খারাপ পছন্দ বাড়াতে পারে। আমাদের ৯ টি টিপস আপনার স্বাস্থ্যকর জীবন  গঠনের জন্য পড়তে থাকুন যা আপনাকে আপনার ব্যস্ত জীবনে আরও বেশি ভারসাম্য করে তুলবে।


ব্যস্ত ব্যক্তিদের জন্য ৯ টি স্বাস্থ্যকর টিপস :

১. আপনার দিনটি পানি দিয়ে শুরু করুন:



এক  গ্লাস পানি  দিয়ে আপনার সকাল শুরু করুন, সারা রাত উপবাসের পরে, এই প্রথম পানীয়টি আপনার কোষগুলিকে হাইড্রেট করতে এবং আপনাকে জাগিয়ে তুলতে সহায়তা করবে। 

২. খাবারের প্রস্তুতি নিন!



আপনি সাপ্তাহিক খাবার মেনু তৈরি করে নিন।  কারণ খাবার তৈরি করা আপনার জন্য একটি দীর্ঘসময় সাপেক্ষ কাজ, যা প্রচুর সময় এবং চাপ কমিয়ে দিবে।  অথবা, আপনি যদি এক সপ্তাহের রান্নার প্রস্তুতি নিতে খুব ব্যস্ত থাকেন তবে বেগুনী গাজর এবং তাজা হিসাবে খাবার পরিষেবা রয়েছে যা আপনাকে ন্যূনতম রান্নার সাথে সুষম খাবারগুলিতে সহায়তা করতে পারে!

৩. আপনার খাবার গুলো অনলাইনে কিনুন



অল্প সময়ের মধ্যে সেরা দর কষাকষি করার জন্য স্থানীয় মুদি দোকানগুলির  থেকে অনলাইনে আপনার মুদি দোকানগুলি ক্রমশ চাপড়ানোর চেয়ে কম চাপের! এবং যা  আপনার প্রিয় খুচরা বিক্রেতাদের সাথে একটি আনন্দদায়ক শপিংয়ের অভিজ্ঞতা! তাই  সময় বাঁচাতে আপনার খাবার গুলো অনলাইন কিনুন .


৪. আপনার প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী রাখুন



আপনার প্রতিদিনের পুষ্টি এবং ভিটামিনের উৎস পুরণে এবং আপনার প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী করতে এটা গুরুত্বপূর্ণ। 

৫. আপনার ঘুমকে অগ্রাধিকার দিন



ঘুম স্বাস্থ্যের একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ এবং আপনি যদি এটি পর্যাপ্ত পরিমাণে না পান তবে এটি আপনার শক্তির স্তর, অনুপ্রেরণা, ঘনত্ব এবং ক্ষুধা নিয়ন্ত্রণের উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে। সুস্বাস্থ্য বজায় রাখতে এবং আপনার লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য আপনি আপনার ঘুমকে প্রাধান্য দিন এবং আপনার ব্যস্ত জীবনযাপনের সাথে একটানা শয়নকালীন রুটিন রাখুন তা নিশ্চিত করুন। 


৬. অনুশীলন এবং সামাজিকীকরণ



অনুশীলন আপনাকে উৎসাহ বোধ করতে এবং আপনার ঘুম এবং সামগ্রিক সুস্থাকে উন্নত করতে সহায়তা করে। নিজেকে এমন এক অনুশীলন করতে সাহায্য করুন যা আপনি উপভোগ করেন, যোগ, হাইকিং, পাইলেটস, বাইক চালানো বা সাঁতারের মতো নতুন ক্রিয়াকলাপটি চেষ্টা করে দেখুন।


৭. বেশি মাছ খাওয়া



ব্যস্ত জীবনযাপনের অর্থ আপনার মস্তিষ্ক অবিচ্ছিন্নভাবে কাজ করে চলেছে, এ কারণেই আপনার উচিত এমন খাবার খাওয়ার চেষ্টা করা যা মস্তিষ্কের উপকার করে এবং মস্তিষ্কের কার্যকারিতা বাড়ায়। মাছ হ'ল ওমেগা -৩ ফ্যাটি অ্যাসিডের একটি দুর্দান্ত উৎস যা মস্তিষ্কের কোষগুলি সহ দেহের প্রতিটি কোষের চারদিকে ঝিল্লি তৈরি করতে সহায়তা করে। সুতরাং, তারা নিউরন হিসাবে পরিচিত মস্তিষ্কের কোষগুলির কাঠামোর উন্নতি করতে পারে। গবেষণা পরামর্শ দেয় যে তৈলাক্ত মাছের মতো ওমেগা -৩ এর সমৃদ্ধ খাবারগুলি মস্তিষ্কের কার্যকারিতা বাড়িয়ে তুলতে পারে। তাই প্রতিদিন খাবার মেনুতে কিছু পরিমানে মাছ রাখতে চেষ্টা করবেন।

৮. স্ব-যত্নের অনুশীলন করুন



আপনার জীবন যতই ব্যস্ত হয়ে উঠুক না কেন, আপনি নিজের এবং আপনার স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার দিন এবং স্ব-যত্নের অনুশীলন নিশ্চিত করুন। এটি ধ্যান করা, ফেস মাস্ক লাগানো বা পর্যাপ্ত ঘুম পাওয়ার মতো সহজ হতে পারে। স্ব-যত্ন কারী অন্য ব্যক্তি থেকে আলাদা হয়, তাই স্ব-যত্নের অনুশীলন করতে পারেন এমন দশটি ভিন্ন উপায়। স্বাস্থ্যকর জীবনযাত্রার জন্য আপনার কাজ এবং স্বাস্থ্যের মধ্যে ভারসাম্য থাকা দরকার।


৯. একটি সময়সূচী তৈরি করুন!



আপনার ব্যস্ত জীবনযাত্রার শীর্ষে থাকার, সংগঠিত রাখা এবং স্বাস্থ্যকর অভ্যাসগুলি বজায় রাখার অন্যতম সেরা উপায় হল একটি বাস্তবসম্মত সময়সূচি তৈরি করা এবং যতটা সম্ভব তালিকা ব্যবহার করা। আপনার সময়সূচী নির্দেশ দেয় যে আপনি কীভাবে দিন জুড়ে প্রতিটি কাজ শেষ করেন এবং কোথায় আপনার স্বাস্থ্যকর জীবনযাপনের ক্রিয়াকলাপগুলি ফিট করতে পারেন। এটি নিজের জন্য আরও কাজ তৈরি করে আরও চাপজনক বলে মনে হতে পারে, তবে, একটি সময়সূচীটি আঁকড়ানো আপনাকে কম চাপ এবং আরও সুসংহত বোধ করতে সহায়তা করবে যা আপনার উৎপাদনশীলতা এবং সামগ্রিক সুস্থতার উন্নতি করতে পারে। 


আমরা আশা করি আপনার ব্যস্ত জীবনের জন্য এই ৯ টি স্বাস্থ্যকর টিপস আপনার জীবনকে উপভোগ করতে সহায়তা করবে  এবং আশা করি আপনার ব্যস্ততার সময়সূচীটিকে অনেক সহজ করে তুলতে আমাদের ৯ টি টিপস আপনার অনেক কাজে আসবে।



Mnotips-https://diz.ae/oqfQo


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ