শিরোনাম

6/recent/ticker-posts

Header Ads Widget

উত্তরের সীমান্তবর্তী কুড়িগ্রাম ও লালমনিরহাট জেলায় করোনা শনাক্তের হার ১৮.৭৫ এবং ১৪.২৮ শতাংশ

 

২৪ ঘণ্টায় কুড়িগ্রামে শনাক্তের হার ১৮.৭৫ শতাংশ, লালমনিরহাটে ১৪.২৮ শতাংশ

       সংগ্রহকৃত ছবি 

কুড়িগ্রামে গত শুক্রবার ১৬ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৮ দশমিক ৭৫ শতাংশ। গত বৃহস্পতিবার কুড়িগ্রামে করোনা শনাক্তের হার ছিল ৪২ দশমিক ৫২ শতাংশ।

লালমনিরহাটে গত শুক্রবার ৫৩ জনের নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ৫ জনের এবং শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ২৮ শতাংশ। গত বৃহস্পতিবার  এ জেলায় শনাক্তের হার ছিল ২৬ দশমিক ৭৯ শতাংশ।

এই দুই জেলায় গত শুত্রবার করোনা শনাক্তের হার কমার তথ্য নিশ্চিত করেছে কুড়িগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. হাবিবুর রহমান ও লালমনিরহাটের সিভিল সার্জন ডা. নির্মলেন্দু রায়।

গত ১৫ জুন মঙ্গলবার বিকেল ৫টা থেকে কুড়িগ্রাম পৌরসভার তিনটি ওয়ার্ড ২, ৩ ও ৭ নাম্বারে চলাচলের ওপর সাত দিনের  বিশেষ বিধিনিষেধ চলচ্ছে । জেলা প্রশাসন ও পুলিশ বিভাগ যৌথভাবে এ বিশেষ বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে মাঠে কাজ করে যাচ্ছে। তারপরও সাধারণ মানুষ বিধিনিষেধ অমান্য করে অবাধে চলাচল করছেন। কুড়িগ্রামে করোনা সংক্রমণের হার কমাতে গত শনিবার বিকাল থেকে পুরো পৌরসভা জুড়ে চলাচলের ওপর বিশেষ বিধিনিষেধ আরোপ করেছে জেলা প্রশাসন।


কুড়িগ্রাম সিভিল সার্জন ডা. হাবিবুর রহমান দ্য ডেইলি স্টারকে জানান, গত দুই সপ্তাহের তুলনায় গত শুক্রবার করোনা শনাক্তের হার কমেছে। এতে স্বস্তির কিছু নেই। আগামীকাল এ হার আরও বাড়তে পারে। সাধারণ মানুষকে চলাচলে আরও সচেতন করতে হবে। মানতে হবে স্বাস্থ্যবিধি। গতকাল শনিবার বিকাল থেকে পুরো পৌর এলাকায় আরোপ করা হয়েছে বিশেষ বিধিনিষেধ।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ