শিরোনাম

6/recent/ticker-posts

Header Ads Widget

স্ত্রী সহবাসের সুন্নাত পদ্ধতি বা নিয়ম?

সহবাস কি আর কিভাবে স্ত্রীর সাথে সুন্নত তরিকায় সহবাস করা যায় এ সম্পর্কে  অনেকেই জানতে চেয়েছেন। আর এটা সবার জন্যই জানার দরকার মনে করে পোষ্ট লেখলাম। বর্তমানে ইসলামি যৌ"ন জীবন বা যৌ"ন বিজ্ঞান সম্পর্কে সমাজের অনেকই তেমন কোন ধারণা নাই বা রাখেন না! এই নাই বা না জানার কারনে মানুষ সচারাচর এমন কিছু কাজ করছে যা তারা পাপ নয় বলে মনে করলেও কিন্তু পাপ কাজ করছে। সঠিক জ্ঞান, মাত্রা ও ব্যবহার পদ্ধতি না জানার কারনে তৈরি হচ্ছে নানাবিধ যৌ"ন রোগ যার অনেক কারনই আমাদের মধ্যে গোপন থেকে যায়। যাই হোক মুল কথায় ফিরছি।



আমরা সাধারণত যা জানি তা হচ্ছে সহবাসের সময় স্ত্রী নিচে শুয়ে থাকবে আর স্বামী ঠিক তার উপরি ভাগে থেকে সহবাস করবে। মহান আল্লাহ তায়ালা কোরআনুল কারীমে সহবাসের নিয়ম এভাবেই সুরা আরাফের ১৮৯ নম্বর আয়াতে

বলেছেন-

فَلَمَّا تَغَشَّاهَا حَمَلَتْ حَمْلاً خَفِيفًا فَمَرَّتْ بِهِ فَلَمَّا أَثْقَلَت دَّعَوَا اللّهَ رَبَّهُمَا لَئِنْ آتَيْتَنَا صَالِحاً لَّنَكُونَنَّ مِنَ الشَّاكِرِينَ (

অতঃপর পুরুষ যখন নারীকে আবৃত করল, তখন, সে গর্ভবতী হল। অতি হালকা গর্ভ। সে তাই নিয়ে চলাফেরা করতে থাকল। ( সুরা আরাফ: আয়াত ১৮৯ )। 


অভিজ্ঞ ডাক্তারগন একথাই বার বার বলে থাকেন। 

অতএব স্পষ্ট ভাবে বলা যায়, সহবাসের নিয়ম হলো স্ত্রী নিচে থাকবে আর স্বামী উপরে থাকবে। আর তাতেই স্ত্রী গর্ভধারন করবে। 


যে বিষয়টি নিয়ে সতর্কত থাকতে হবে স্ত্রী স্বামীর উপর থেকে বসে সহবাস করছে আর সে সমযয়ে স্বামীর বীর্যপাত হয়ে গেল। তাহলে ডাক্তারী চিকিৎসা মতে এ সময় বীর্য পুরো বের না হয়ে শুক্র নালীর বিশেষ জায়গায় আটকে থাকে এর ফলে পুরুষের শুক্র নালীর ভেতর পাথর তৈরি হয়ে বড় ধরনের রোগ হবার আশংকা দেখা দেয় । তাছাড়া এ অবস্থায় স্ত্রী গর্ভধারণও প্রশ্ন বিদ্ধ করে তুলে।যদিও ইদানিং সহবাসের অনেক নিয়ম বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেখানো হয় এ গুলো সঠিক নিয়ম নয় এগুলোতে প্রশান্তি থাকে না।

তাই চলুন জেনে নেই সহবাসের আরো কিছু সুন্নত নিয়ম-

# স্ত্রী সহবাসের পূর্বে ভাল করে দাতঁ ব্রাশ বা মিসওয়াক করে নিবে।

# স্বামীও সহবাসের পূর্বে ভাল করে দাঁত মেসওয়াক বা ব্রাশ করে নিবে। সিগারেটের মত বা কোন বদ নেশার দুর্গন্ধ নিয়ে স্ত্রীর সাথে সহবাসে যাবেন না।

# স্বামী স্ত্রী সহবাস করতে চাইলে পুর্বে উভয়ে ওজু করে নিজেদেরকে পবিত্র করে নিবে।

# সহবাসের শুরুতে বিসমিল্লাহ বলে আরম্ভ করা মুস্তাহাব, যাদি শুরুতে বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে গেলে বীর্যপাত হবার পর বিসমিল্লাহ পড়ে নিবে।

# স্ত্রী-সহবাসের আগে যে দোয়াটি পড়বেন-

আরবি দোয়া  

«بِسْمِ اللَّهِ، اللَّهُمَّ جَنِّبْنَا الشَّيْطَانَ، وَجَنِّبِ الشَّيْطَانَ مَا رَزَقْتَنَا». 

এর বাংরা উচ্চারণ "বিসমিল্লাহি আল্লা-হুম্মা জান্নিবনাশ্-শাইত্বানা ওয়া জান্নিবিশ্-শাইত্বানা মা রযাকতানা"। 

এর বাংলা অর্থ "আল্লাহ্‌র নামে শুরু। হে আল্লাহ! তুমি আমাদের কাছ থেকে শয়তানকে দূরে রাখ এবং আমাদেরকে তুমি যে সন্তান দান করবে তার থেকেও শয়তানকে দূরে রাখ।

[হাদিস বুখারী 

৬/১৪১, ১৪১; মুসলিম হাদিস ২/১০২৮, নং ১৪৩৪।]



# সহবাসের সময় স্ত্রী তার নিজের শরীরে সুন্দর সুগন্ধি যুক্ত টেলকম পাউডার বা সুগন্ধি লাগিয়ে নিবে। স্বামীও তার স্ত্রীর পছন্দমত আতর বা সুগন্ধি লাগিয়ে নিবে ।

# সহবাসের সময় কেবলা মুখি হয়ে সহবাস না করা।

# যে কোন পরিস্থিতিতে নেশা জাতীয় খাদ্য বা পানীয় খেয়ে বা পান করে সহবাস করা যাবে না।

# কারো সামনে সহবাস করা যাবে না, এমনকি নিজের আড়াই/ তিন বছরের জাগ্রত শিশুর সামনে ও নয়। 

# সহবাসের সময় একেবারে উলঙ্গ হয়ে সহবাস না করা। যদি তৃপ্তি না আসে তাহলে দুজনের উপরে কোন পাতলা কাপড় বা চাদর দিয়ে ঢেকে নিবে।

# সহবাসে বীর্যপাত হয়ে গেলে সাথে সাথে স্ত্রীর উপর থেকে নেমে না পড়া, বরং কিছু সময় আপনার স্ত্রীর উপর শুয়ে থাকবে। এবং পুরো শরিরের ভর তার উপর ছেড়ে না দিয়ে আপনার উপর কিছু চাপ রাখা যাতে আপনার স্ত্রী কষ্ট না পায় সেদিকে খেয়াল রাখা সুন্নত।

# পায়ূ পথে সঙ্গম না করা (পায়ূ পথে সঙ্গমের চিন্তা ও করবে না এটা মহাপাপ) যা কোরআন ও হাদিসে কঠিন ভাবে নিষেদ্ধ করা হয়েছে। এছাড়া ডাক্তারী সাইন্স মতে পায়ূ পথে সঙ্গম করলে উভয়ের এমন কঠিন ব্যাধির আশংকা রয়েছে যার চিকিৎসা পৃথিবীর কোন ডাক্তারের করা সম্ভব হবে না। তাই সাবধান!!!!!! 


ইসলাম শুধু মাত্র নামাজ, রোজা, হজ্জ, যাকাতের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয়

প্রতিটি কাজের সাথে গভীর ভাবে জড়িয়ে রয়েছে ইসলামের হুকুম আহকাম ও নিয়ম কানুন তাই চলুন, আমাদের

প্রিয় নবী হজরত মুহাম্মদ সাঃ আমাদের সব কিছু যেভাবে শিখিয়ে গিয়েছেন, সেই ভাবে সুন্নত মেনে জীবন যাপন করি,  জান্নাতি মানুষদের অনুসরণ করে চলি। আমরা সকলেই যেন জান্নাতি হতে পারি। হে আল্লাহ পৃথিবীর সকল মুমিন বা মুসলমানদের সেই তাওফিক দান করুন, আমিন 


বি,দ্রঃ যারা ইসলামকে ভালোবাসেন এবং ইসলাম সম্পর্কে জানতে ও জানাতে চান, তারা কমেন্ট বক্স এ জানাবেন এবং আমাদের এই লেখাটি বেশি বেশি শেয়ার করে দিবেন। 

আসসালামু আলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহ।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ